Voice of SYLHET | logo

২৬শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ১০ই আগস্ট, ২০২২ ইং

কুমিল্লায় আদালতের এজলাসে বিচারকের সামনে আসামি খুন

প্রকাশিত : July 15, 2019, 08:47

কুমিল্লায় আদালতের এজলাসে বিচারকের সামনে আসামি খুন

ভয়েস অব সিলেট ডেস্ক:

কুমিল্লায় আদালতের এজলাসে এক আসামির ছুরিকাঘাতে অপর এক আসামির মৃত্যু হয়েছে। নিহতের নাম মো. ফারুক (৩৫)।

সোমবার দুপুরে কুমিল্লার অতিরিক্ত ৩য় দায়রা জজ আদালতে বিচারকের সামনেই এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ফারুক জেলার মনোহরগঞ্জ উপজেলার ওয়াহিদুল্লার ছেলে।

আর অভিযুক্ত ঘাতক হাসান লাকসাম উপজেলা সদরের শহীদুল্লার ছেলে। পুলিশ হাসানকে গ্রেফতার করেছে।

জানা যায়, সোমবার জেলার মনোহরগঞ্জ থানার একটি হত্যা মামলায় হাজিরা দিতে আসেন আসামি হাসান ও ফারুক। দুজন এই মামলার আসামি। তারা সম্পর্কে মামাতো-ফুফাতো ভাই।

দুপুরে অতিরিক্ত ৩য় দায়রা জজ আদালতের বিচারক ফাতেমা ফেরদৌস আসনে বসলে আদালতের কার্যক্রম শুরু হয়।মামলার শুনানিকালে ফারুকের কারণে হাসানকে আসামি হতে হয়েছে এমন অভিযোগ করা হয়।এ সময় হাসান এজলাসেই ফারুককে উপর্যপুরী ছুরিকাঘাত করতে থাকে এবং তাকে বিচারকের খাস কামরার দিকে নিয়ে যায়।

আসামি হাসানের আইনজীবী শাহনেওয়াজ সুলতানা জানান, ২০১৫ সালের একটি হত্যা মামলার হাজিরার দিন ধার্য তারিখ ছিল আজ। এ মামলায় আসামি হিসেবে হাসান, ফারুক, রিনা হাজিরা দিতে আসেন।

মামলার কার্যক্রম শুরু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে হাসান ফারুককে মারধর শুরু করে। একপর্যায়ে ফারুককে মারতে মারতে বিচারকের খাস কামরার দিকে নিয়ে যায়। সেখানে বিচারকের সমানেই তাকে উপুর্যপুরী ছুরিকাঘাত করে।

এ ঘটনা দেখে বাঙ্গরা থানায় কর্মরত পুলিশ সদস্য ফিরুজ আহাম্মেদ সঙ্গে সঙ্গেই বিচারকের খাস কামরায় গিয়ে ঘাতক হাসানকে আটক করে ছুরিটি উদ্ধার করে।

কোর্ট পুলিশ সদস্য ফিরুজ আহাম্মেদ জানান, তিনি ঘটনাস্থলে যাওয়ার আগেই ফারুকের শরীরে একাধিক ছুরিকাঘাত করা হয়।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, ঘাতক হাসানকে আটক করা হয়েছে, তার বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

সংবাদটি পড়া হয়েছে 946 বার

যোগাযোগ

অফিসঃ-

উদ্যম-৬, লামাবাজার, সিলেট,

ফোনঃ 01727765557

voiceofsylhet19@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ

সম্পাদক মন্ডলি

ভয়েস অফ সিলেট ডটকম কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।