Voice of SYLHET | logo

১৪ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৭শে জানুয়ারি, ২০২২ ইং

সিলেট নগরে অর্ধশতাধিক অবৈধ অটোরিকশা স্ট্যান্ড

প্রকাশিত : August 22, 2019, 13:29

সিলেট নগরে অর্ধশতাধিক অবৈধ অটোরিকশা স্ট্যান্ড

নিউজ ডেস্ক:নগরীতে অটোরিকশার অর্ধশতাধিক স্ট্যান্ড রয়েছে। যদি এর একটিরও বৈধতা নেই। সবগুলোই গড়ে ওঠেছে অবৈধভাবে। সড়ক দখল করে এসব অবৈধ স্ট্যান্ডের কারণে তীব্র হচ্ছে নগরীর যানজট। আবার স্ট্যান্ডের মাধ্যমে সিন্ডিকেট করে ভাড়া বৃদ্ধিরও অভিযোগ আছে। ফলে ভোগান্তিতে পড়ছেন যাত্রীরা।

এসব অবৈধ স্ট্যান্ডের রণে এক এলাকার গাড়ি অন্য এলাকার যাত্রী তুললে চালক ও যাত্রীদের হেনস্থা করেন স্ট্যান্ডের দায়িত্বরতরা।সিলেট নগরের বিভিন্ন এলাকায় সরজমিনে দেখা যায়, নগরের গুরুত্বপূর্ণ এলাকার সড়কগুলো দখল করে সিএনজি অটোরিকশার অবৈধ স্ট্যান্ড গড়ে তোলা হয়েছে।

এসব অবৈধ স্ট্যান্ডের সাথে পরিবহন শ্রমিক নেতাদের পাশাপাশি, স্থানীয় প্রভাবশালী ও অনেক রাজনৈতিক নেতা জড়িত রয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এদের প্রভাবেই সড়ক দখল করে স্ট্যান্ড বানিয়ে বছরের পর বছর ধরে দিব্যি ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে।নগরের কোনো সড়ক সম্প্রসারণ হলেই ইচ্ছেমতো অস্থায়ী স্ট্যান্ড বানিয়ে দেওয়া হয়। যার ফলে নগরের গুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলোতে যানজট সৃষ্টি হয়। আর এই যানজট এখন নগরবাসীর নিত্যদিনের সঙ্গী
চারটি সড়কের সংযোগস্থল সিলেট নগরের আম্বরখানা পয়েন্ট। এই পয়েন্টের চারটি মোড়ে গড়ে উঠেছে অটোরিকশার চারটি স্ট্যান্ড। এর মধ্যে আম্বরখানা পয়েন্টের পূর্ব দিকে টিলাগড়-আম্বরখানা সড়কে অটোরিকশার স্ট্যান্ড। পশ্চিম দিকে টুকেরবাজার-আম্বরখানা-বাদাঘাট সড়কে অটোরিকশা স্ট্যান্ড, উত্তর দিকে আম্বরখানা-বিমানবন্দর সড়কে স্ট্যান্ড ও দক্ষিণ দিকে বন্দরবাজার-আম্বরখানা রোডের অটোরিকশা স্ট্যান্ড গড়ে উঠেছে। চারমুখি এই সড়কের বেশিরভাগ জায়গা দখল করে দাঁড় করিয়ে রাখা হয়েছে অসংখ্য অটোরিকশা।কেবল এই সড়কই নয়, সিলেটের বেশিরভাগ সড়কেরই এমন দশা। সড়ক দখল করে গড়ে তোলা হয়েছে অটোরিকশার স্ট্যান্ড। আম্বরখানা ছাড়াও নগরের কোর্ট পয়েন্ট, ধোপাদীঘিরপাড়, মজুমদারী, ওসমানী হাসপাতালের সামনে, মদিনা মার্কেট, বাগবাড়ি, টিলাগড়সহ বিভিন্ন এলাকায় অর্ধশতাধিক অবৈধ স্ট্যান্ড গড়ে ওঠেছে।
আম্বরখানা এলাকার ব্যবসায়ী রায়হান আহমদ বলেন, যত্রতত্র স্ট্যান্ড ও অটোরিকশা চালকদের দৌরাত্ম্যে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছি আমরা। আম্বরখানা পয়েন্ট এখন সিএনজি অটোরিকশা স্ট্যান্ডে পরিণত হয়েছে। মার্কেট, দোকানের সামনে, যেখানে খুশি তারা অটোরিকশা দাঁড় করিয়ে রাখেন। তাদেরকে কিছু বলা যায় না। তাদের আছে অদৃশ্য শক্তি।প্রায় একই ধরনের অভিযোগ নগরের কোর্টপয়েন্ট, ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল রোড, ধোপাদীঘিরপাড়ের ব্যবসায়ীদেরও।নগরের বাগবাড়ি এলাকার বাসিন্দা মঞ্জুর রহমান বলেন, আমার বাড়ি হবিগঞ্জ। বৃদ্ধ বাবা মাকে দেখতে মাসে দুই থেকে তিনবার হবিগঞ্জ যাই। সিলেটে এসে বাস থেকে নেমে সিএনজিতে উঠলেই বিপদে পড়তে হয়। ক্বিনব্রিজের দক্ষিণ পাড়ের মোড়ে সিএনজি অটোরিকশা স্ট্যান্ড করেছে কয়েকজন। ওইখান থেকে যেতে হলে তাদের সিএনজিতেই যেতে হয়। অন্য সিএনজিতে উঠলে তারা হেনস্তা করেন।মঞ্জুর আহমেদ আরও বলেন, স্ট্যান্ড থেকে সিএনজিতে উঠলে তাদের কথা অনুযায়ী ভাড়া দিতে হয়। কম বেশি করা যায় না। চালকরাও আমাদের অপারগতা বুঝে বেশি ভাড়া দাবি করেন। তাই যেসব এলাকায় সিএনজি অটোরিকশা স্ট্যান্ড আছে সেসব এলাকায় অন্য জায়গার সিএনজিতে যাত্রী তুললে তারা হেনস্তা করেন। তাদের প্রয়োজনীয়তা বুঝে তারা জিম্মি করে রেখেছেন নগরবাসীকে।সিএনজি অটোরিকশা স্ট্যান্ডে এসব অনিয়মের কথা স্বীকার করেছেন বেশ কয়েকজন চালকও। নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েকজন চালক বলেন, এলাকাভিত্তিক প্রভাবশালীদের মাধ্যমে কিছু চালক অবৈধ ভাবে স্ট্যান্ডগুলো চালাচ্ছেন। এতে প্রশাসনের লোকজনও জড়িত আছেন। আমরা চালকরাও এসব স্ট্যান্ডের কাছে জিম্মি। তবে এসব আর বেশি দিন চলবে না। সিটি বাস সার্ভিস চালু হলেই সিএনজি অটোরিকশা স্ট্যান্ড মালিক ও অসাধু চালকদের দৌরাত্ম্যে কমবে

সংবাদটি শেয়ার করুন

সংবাদটি পড়া হয়েছে 357 বার

যোগাযোগ

অফিসঃ-

উদ্যম-৬, লামাবাজার, সিলেট,

ফোনঃ 01727765557

voiceofsylhet19@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ

সম্পাদক মন্ডলি

ভয়েস অফ সিলেট ডটকম কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।