Voice of SYLHET | logo

১২ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৫শে জানুয়ারি, ২০২২ ইং

কোরবানির বর্জ্য অপসারণে নগরীতে কাজ করছে ১২০০ শ্রমিক।

প্রকাশিত : August 13, 2019, 07:25

কোরবানির বর্জ্য অপসারণে নগরীতে কাজ করছে ১২০০ শ্রমিক।

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

সিলেট নগরীতে কোরবানির বর্জ্য অপসারণে কাজ করছেন ১২০০ জন শ্রমিক। সিটি করপোরেশন এলাকায় ২৪ ঘণ্টার মধ্যে কোরবানির বর্জ্য অপসারণের লক্ষ্য বাস্তবায়নে কাজ করছেন তারা।

সিলেট সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্ন শাখার কর্মকর্তা হানিফুর রহমান বলেন, এবার নগরের ২৭টি ওয়ার্ডের ৩০টি স্থান পশু কোরবানির জন্য নির্ধারিত ছিল। দুপুরের মধ্যে সেসব স্থান থেকে বর্জ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। সন্ধ্যায় আবার সেসব স্থান থেকে বর্জ্য সংগ্রহ করা হবে। বাকি এলাকাগুলোতে কোরবানির বর্জ্য জমলে সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হলে সেগুলো পরিচ্ছন্ন করার ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তিনি আরও বলেন, বেলা আড়াইটার মধ্যে সিটি করপোরেশন এলাকার ৯০ শতাংশ পশুর হাটের বর্জ্য অপসারণ করা হয়েছে। রাতের মধ্যেই পরিচ্ছন্নতার কাজ শেষ করা যাবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

সিটি করপোরেশন সূত্রে জানা গেছে, বর্জ্য অপসারণে করপোরেশনের ১০টি পানিবাহী যানের সঙ্গে নিয়মিত ৫৫০ জন পরিচ্ছন্নতাকর্মী এবং আরও ৬৫০ জন চুক্তিভিত্তিক কর্মী কাজে নেমেছেন। বর্জ্য অপসারণে নগরে ব্যবহার করা হচ্ছে ৫০টি ট্রাক।

সিটি করপোরেশন সূত্রে জানা গেছে, বর্জ্য অপসারণে করপোরেশনের ১০টি পানিবাহী যানের সঙ্গে নিয়মিত ৫৫০ জন পরিচ্ছন্নতাকর্মী এবং আরও ৬৫০ জন চুক্তিভিত্তিক কর্মী কাজে নেমেছেন। বর্জ্য অপসারণে নগরে ব্যবহার করা হচ্ছে ৫০টি ট্রাক।

সোমবার দুপুর ১২টায় নগরের সর্ববৃহৎ পশুর হাট কাজীর বাজার এলাকায় পরিচ্ছন্নতা অভিযান শুরু হয়। এ সময় সড়কে জমে থাকা পশুর বর্জ্য পানি দিয়ে পরিষ্কার করে কাজের উদ্বোধন করেন সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

এ সময় মেয়র বলেন, সিটি করপোরেশন এলাকার কোরবানির বর্জ্য ২৪ ঘণ্টার মধ্যে অপসারণ করা হবে। গত বছরও সিটি করপোরেশন কোরবানির বর্জ্য অপসারণের কাজ ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সফলভাবে শেষ করেছিল।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সংবাদটি পড়া হয়েছে 714 বার

যোগাযোগ

অফিসঃ-

উদ্যম-৬, লামাবাজার, সিলেট,

ফোনঃ 01727765557

voiceofsylhet19@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ

সম্পাদক মন্ডলি

ভয়েস অফ সিলেট ডটকম কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।