Voice of SYLHET | logo

১০ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৩শে জানুয়ারি, ২০২২ ইং

ইউরোপের স্বপ্ন দেখিয়ে মানবপাচার, ফিরছেন লাশ হয়ে

প্রকাশিত : January 08, 2021, 18:18

ইউরোপের স্বপ্ন দেখিয়ে মানবপাচার, ফিরছেন লাশ হয়ে

নিউজ ডেস্কঃ থামছেই না ইউরোপের স্বপ্ন দেখিয়ে মানবপাচার। একটু স্বচ্ছল জীবনের আশায় প্রতারণার ফাঁদে পা দিয়ে এর আগেই লাশ হয়েছেন অনেকে। তারপরও মিলছে নতুন নতুন চক্রের খোঁজ। এবার শ্রীলঙ্কার জঙ্গলে আটকে রেখে মুক্তিপণ আদায়কারী এক চক্রের চারজনকে গ্রেফতার করেছে সিআইডি। এদের সঙ্গে জড়িত ভারত, মালদ্বীপের দালালরাও।

২০১৫ সালে থাইল্যান্ডের দক্ষিণাঞ্চলে প্রায় ২৫ টি গণকবরের সন্ধান মেলে। যেখানে মর্মান্তিক মৃত্যুর শিকার হওয়া বাংলাদেশিসহ প্রায় অর্ধশত মরদেহের সন্ধান পাওয়া যায়।

শুধু থাইল্যান্ড নয়, পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে একটু স্বচ্ছল জীবনের আশায় বিভিন্ন মানবপাচার চক্রের খপ্পড়ে পড়ে সহায় সম্বল আর প্রাণ হারাতে হয় বহু বাংলাদেশিকে। যাদের প্রত্যকে নানা প্রলোভনে বিভিন্ন দেশে নিয়ে ভয়ঙ্কর জঙ্গলে আটকে রেখে চালানো হয় অমানুসিক নির্যাতন। মুক্তপণ না দিলে দিনের পর দিন আটকে রেখে ভাগ্যে জোটে নিষ্ঠুর মৃত্যু।
এমন ঘটনার কোনো বিচার বা সুরাহা না হলেও উল্টো পাওয়া যায় নতুন নতুন পাচারকারী চক্র। এবার এমনই এক পাচারকারীর সন্ধান পেয়েছে সিআইডি। টার্গেটকে স্বপ্নের ইউরোপের কথা বলে নিয়ে যাওয়া হতো ভারতে। সেখান থেকে শ্রীলংকার জঙ্গলে নিয়ে মুক্তিপণের জন্য চালানো হতো নির্যাতন।

এক ভুক্তভোগী বলেন, ইউরোপের দেশ মাল্টায় পাঠানোর কথা বলে এই চক্রের সঙ্গে ১২ লাখ টাকার চুক্তি হয়। পরে আমার কাছ থেকে বাংলাদেশ থাকাকালীন আট লাখ টাকা নেয় তারা। এরপর ভারতে নিয়ে যায়। সেখানের হায়দারাবাদে নিয়ে আমাকে নির্যাতন চালায় এবং আরও চার লাখ টাকা আদায় করে। এরপর হায়দারাবাদ এলাকার একটি জঙ্গলে আমাকে ফেলে দেয়। পরে সেখানকার স্থানীয় লোকদের সহযোগিতায় আমি দেশে ফিরে আসি।

সিআইডি বলছে ভুয়া জনশক্তি কর্মসংস্থান অফিস খুলে ফাঁদে ফেলতো এই চক্র। তাদের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ভারত, মালদ্বীপের দলালচক্রও।

সিআইডি’র অতিরিক্ত ডিআইজি শেখ ওমর ফারুক বলেন, ‘শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ হয়ে ইউরোপের কোনো দেশে এরকম হয়তো তারা যায়। দালালদের মাধ্যমে এদেরকে সংগ্রহ করা হয়। খুব কম লোকই কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারে। বেশিরভাগ সময় তাদেরকে ইউরোপের কথা বলে মোটা অংকের টাকা নিয়ে পার্শবর্তী কোন দেশে নিয়ে আটকে রেখে মারধর করে আরও টাকার জন্য চাপ সৃষ্টি করে।

রাজধানীর উত্তরা থেকে তাদের গ্রেফতার করে সিআইডি। এ সময় তাদের কাছ থেকে ২৮টি পাসপোর্ট, দূতাবাস, ব্যাংক এবং এজেন্সির ভুয়া সিলসহ বিভিন্ন দেশের জাল ভিসা জব্দ করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সংবাদটি পড়া হয়েছে 235 বার

যোগাযোগ

অফিসঃ-

উদ্যম-৬, লামাবাজার, সিলেট,

ফোনঃ 01727765557

voiceofsylhet19@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ

সম্পাদক মন্ডলি

ভয়েস অফ সিলেট ডটকম কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।