সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা সীমান্ত এলাকা বড়দল (উ.) ইউনিয়নের নয়া ছড়ায় (চাঁনপুর) অবৈধভাবে পাথর উত্তোলন করার সময় তিনটি স্টিল বডি নৌকা ও পাথর উত্তোলনকারী ৯ শ্রমিক কে আটক করেছেন ইউনিয়ন ভূমি অফিসের ভূমি সহকারী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) রঞ্জন কুমার দাশ।

মঙ্গলবার রাতে ভূমি সহকারী কর্মকর্তা রঞ্জন কুমার দাশ বাদী হয়ে আটককৃতদের বিরুদ্ধে বালু মহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইনে মামলা দায়ের করেন।

আটককৃত শ্রমিকরা হলেন, উপজেলার বড়দল (উ.) ইউনিয়নের হলহলিয়া গ্রামের আলী হোসেনের ছেলে মোক্তার মিয়া (৩৪), মৃত আবুল কালামের ছেলে আজগর আলী (৩০), আ. সালামের ছেলে রফিক মিয়া (৩০), নুর ইসলামের ছেলে নুর আলী (২৯), লায়েছ মিয়ার ছেলে জহির মিয়া (২৬), আ. অদুতের ছেলে আশরাফুল (১৯), তাহের মিয়ার ছেলে জিন্নাত আলী (২২) ও পার্শ্ববর্তী হলহলিয়া চরগাঁও গ্রামের মৃত আবু তালেব মুন্সীর ছেলে সাকির আহমদ (২২), মৃত রহম আলীর ছেলে শাহ আলম (২৮)।

উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার দুপুরে একদল শ্রমিক বড়দল(উ.) ইউনিয়নের নয়া ছড়ায় অবৈধভাবে মরা পাথর উত্তোলন করে নৌকায় (লোড) ভর্তি করছে।

বিষয়টি তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পদ্মাসন সিংহের নজরে আসলে তার নির্দেশে ইউনিয়ন ভূমি অফিসের ভূমি সহকারী কর্মকর্তা রঞ্জন কুমার দাশের নেতৃত্বে ও তাহিরপুর থানার টেকেরপুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এএসআই মো. আবু মুছার সহযোগিতায় তাদের আটক করে নৌকাসহ থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

তাহিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আতিকুর রহমান বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেছেন, আটককৃত আসামীদের বুধবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে