Voice of SYLHET | logo

১৪ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৭শে জানুয়ারি, ২০২২ ইং

স্বাধীনের চিকিৎসা খরচের ব্যাখা দিলো স্কয়ার কর্তৃপক্ষ

প্রকাশিত : July 30, 2019, 08:46

স্বাধীনের চিকিৎসা খরচের ব্যাখা দিলো স্কয়ার কর্তৃপক্ষ

তোফায়েল আহমদ:ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে গত ২৬ জুলাই রাত ১০টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে মারা যান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স বিভাগের শিক্ষার্থী ফিরোজ কবির স্বাধীন।
এরআগে ২৫ তারিখ রাত ১১টায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। এই ২২ ঘণ্টায় ফিরোজের চিকিৎসা বাবদ প্রায় ১ লাখ ৮৬ হাজার টাকা বিল করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।
ফিরোজ কবিরের স্বজনরা অভিযোগ তুলেছেন, এই বিলটিতে সামঞ্জস্যহীনতা রয়েছে। বিলটি নিয়ে সমালোচনা এবং বিতর্ক তৈরি হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও।
গতকাল রোববার ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর এ বিষয়ে তদন্তও শুরু করে। এরই মাঝে আজ এত টাকা বিলের বিষয়ে ব্যাখ্যা দিয়ে প্রেস বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে স্কয়ার হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, একজন রোগী হাসপাতালে ভর্তির প্রথম দিনেই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষা ও ব্যবস্থাগুলো নেওয়া হয়ে থাকে। ফিরোজের ক্ষেত্রেও একই প্রক্রিয়া অনুসরণ করা হয়েছে। এ কারণেই আপাতদৃষ্টিতে অল্প সময়ে বিলের পরিমাণ বেশি বলে মনে হয়েছে।
এতে আরও জানানো হয়, ফিরোজ কবিরকে অচেতন ও লাইফ সাপোর্টে থাকা অবস্থায় স্কয়ারে নিয়ে আসা হয়। তার মুখ, নাক ও প্রস্রাবের সঙ্গে রক্তপাত হচ্ছিল। সেখানে ভর্তির সময়ই তাকে চিকিৎসকরা ডেঙ্গু শক সিন্ড্রোম, সেপটিক শক, একিউট কিডনি ইনজুরির রোগী বলে শনাক্ত করে। তাকে এজন্য লাইফ সাপোর্টের সর্বোচ্চ সাপোর্ট দিতে হচ্ছিল।
এছাড়াও তার চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনী সকল ব্যবস্থা এবং ওষুধ হাসপাতাল থেকে সরবরাহ করা হয়। ফিরোজের স্বজনেরা বিভিন্ন অজুহাতে মোট বিলের মাত্র ৫৭ হাজার টাকা পরিশোধ করেছেন বলেও দাবি করা হয় বিজ্ঞপ্তিতে।
প্রসঙ্গত, শুক্রবার রাত ১০ টার দিকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় স্বাধীনের মৃত্যু হয়। তার ঘনিষ্ঠ বন্ধু তরিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে স্বাধীন এক সপ্তাহ ধরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি ছিলেন।
বৃহস্পতিবার ঢামেক হাসপাতাল থেকে স্কয়ার হাসপাতালে তাকে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে তার মৃত্যু হয়।
স্বাধীনের ২২ ঘণ্টার চিকিৎসায় করা হাসপাতালের বিলে দেয়া তথ্যগুলো হলো, ওষুধ বাবদ ৩২ হাজার ৩২১ টাকা ৫১ পয়সা, ল্যাবরেটরি চার্জ ৭৩ হাজার ৮৩৬ টাকা, মেডিকেল হসপিটাল সাপ্লাইতে ১০ হাজার ২১৯ টাকা বিল ধরা হয়েছে। বাকি টাকা অন্যান্য কয়েকটি খাতে ধরা হয়েছে। মোট বিল দেখানো হয়েছে ১ লাখ ৮৬ হাজার ৪৭৪ টাকা!

সংবাদটি শেয়ার করুন

সংবাদটি পড়া হয়েছে 779 বার

যোগাযোগ

অফিসঃ-

উদ্যম-৬, লামাবাজার, সিলেট,

ফোনঃ 01727765557

voiceofsylhet19@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ

সম্পাদক মন্ডলি

ভয়েস অফ সিলেট ডটকম কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।