Voice of SYLHET | logo

১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ২৮শে মে, ২০২২ ইং

করোনায় যুক্তরাষ্ট্রে আরো ৪ জনসহ ১৯৮ বাংলাদেশির মৃত্যু

প্রকাশিত : April 26, 2020, 15:17

করোনায় যুক্তরাষ্ট্রে আরো ৪ জনসহ ১৯৮ বাংলাদেশির মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:-

নিউইয়র্কে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ২৫ এপ্রিল মৃত্যুর মিছিলে যুক্ত হয়েছে আরও ৪৩৭ জনের নাম। সেই সাথে ২৪ ঘণ্টায় ওই তালিকায় আরও চারজন বাংলাদেশির নামও যুক্ত হয়েছে। তাঁরা হলেন-মিজানুর রহমান, ফরিদ আহমেদ ছাইদুল, বাবলী নেওয়াজ ও মহিউদ্দিন। এ নিয়ে আমেরিকায় করোনায় ১৯৮ জন বাংলাদেশির মৃত্যু হলো।
গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু হওয়া বাবলী নেওয়াজ বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব পারফর্মিং আর্টসের সহসভাপতি ছিলেন। করোনায় আক্রান্ত হয়ে ২৫ এপ্রিল ভোরে জ্যামাইকার কুইন্স হাসপাতালে তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। তিনি জ্যামাইকায় বসবাস করতেন। তাঁর স্বামী অনেক আগে মৃত্যুবরণ করেছেন। দুই সন্তান মুনমুন নেওয়াজ ও তৃণা নেওয়াজ এবং এক নাতনিকে রেখে গেছেন। বাবলী নেওয়াজের মৃত্যুতে নিউইয়র্কের সাংস্কৃতিক সমাজে শোকের ছায়া মেয়ে এসেছে। এরই মধ্যে আমেরিকায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৫৪ হাজারেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে।
নিউইয়র্কের গভর্নর অ্যান্ড্রু কুমো দেওয়া হিসাব অনুযায়ী, রাজ্যে এখন মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৬ হাজার ৫৯৯ জনে এবং করোনা আক্রান্ত বলে শনাক্ত হয়েছে ২ লাখ ৭১ হাজার ৫৯০ জন। প্রতিদিন গড়ে এক হাজার করে নতুন সংক্রমণের রোগী হাসপাতালে যাচ্ছেন। নিউইয়র্কে দিনে ২০ হাজার মানুষের করোনা টেস্ট করা সম্ভব হচ্ছে। অচিরেই এ টেস্টের সংখ্যা ৪০ হাজারে নিয়ে যাওয়া হবে বলে গভর্নর জানিয়েছেন।
গভর্নর কুমো বলেছেন, তিনি নির্বাহী আদেশে রাজ্যের ফার্মেসিগুলোতে করোনাভাইরাস টেস্টিং সুবিধা বিস্তৃত করছেন। ফার্মেসিগুলো টেস্টিং উপাত্ত গ্রহণ করে ল্যাবে পাঠাবে। ল্যাব থেকে টেস্টিং করে ফলাফল ফার্মেসিতে ফেরত পাঠাবে। এর ফলে দ্রুত রাজ্যের অধিকাংশ মানুষের জন্য করোনাভাইরাস টেস্টিং সুবিধা বিস্তৃত হবে। নগরীর ফার্স্ট রেসপন্ডার, জরুরি বিভাগ ও স্বাস্থ্যকর্মীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে টেস্ট করা হচ্ছে। এরপরই এমটিএ, পুলিশসহ সামনের সারির জরুরি কর্মীদের অগ্রাধিকার দিয়ে টেস্টিং করা হবে। দ্রুতই নিউইয়র্কের সর্বত্র টেস্টিং সুবিধা সহজলভ্য করা হবে বলে গভর্নর জানিয়েছেন।
নগরীর মেয়র বিল ডি ব্লাজিও জানিয়েছেন, নগরীতে করোনায় আক্রান্ত মানুষের গড় বয়স দেখা গেছে ৫১ বছর। নগরীতে আক্রান্তের মধ্যে ৫২ শতাংশ পুরুষ এবং ৪৮ শতাংশ নারী বলে এ পর্যন্ত পাওয়া তথ্যে দেখা গেছে

সংবাদটি শেয়ার করুন

সংবাদটি পড়া হয়েছে 156 বার

যোগাযোগ

অফিসঃ-

উদ্যম-৬, লামাবাজার, সিলেট,

ফোনঃ 01727765557

voiceofsylhet19@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ

সম্পাদক মন্ডলি

ভয়েস অফ সিলেট ডটকম কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।