Voice of SYLHET | logo

৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ২১শে মে, ২০২২ ইং

আনসারীর জানাজায় খুব অল্প সময়ে লোকসমাগম হয়: তদন্ত কমিটি

প্রকাশিত : April 21, 2020, 11:40

আনসারীর জানাজায় খুব অল্প সময়ে লোকসমাগম হয়: তদন্ত কমিটি

নিউজ ডেস্ক:-

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলের বেড়তলায় বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের নায়েবে আমির মাওলানা যোবায়ের আহমদ আনসারীর জানাজায় খুব অল্প সময়ের মধ্যে লোকসামগম ঘটে। দায়িত্বে অবহেলা, দাপ্তরিক তথ্য-উপাত্ত ও ভার্চুয়াল জগতের খুঁটিনাটি অনেক বিষয় খতিয়ে দেখা হচ্ছে। গতকাল সোমবার বিকেলে তদন্ত কমিটির সদস্যরা এসব তথ্য সাংবাদিকদের জানান।

পুলিশ সদর দপ্তর জানাজায় জনসমাগমের ঘটনায় চট্টগ্রাম রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি (প্রশাসন ও অর্থ) ইকবাল হোসেনকে প্রধান করে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। কমিটির অন্য দুই সদস্য হলেন চট্টগ্রাম রেঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পঙ্কজ কুমার (অপরাধ) ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেন (প্রশাসন)। তদন্ত কমিটির সদস্যরা গত রোববার সন্ধ্যা থেকে ঘটনাস্থলে পৌঁছে তদন্ত কার্যক্রম শুরু করেন।

তদন্ত দলের প্রধান ইকবাল হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমি সংশ্লিষ্ট সবার সঙ্গে কথা বলেছি। তদন্ত কাজ চলছে। আরও কিছু কাজ করব। এখন পর্যন্ত যে তথ্যগুলো সামনে আসছে সেটা হলো খুব অল্প সময়ের মধ্যেই লোকসামগম ঘটে যায়। সকাল সাড়ে নয়টার পর থেকে মানুষ সেখানে জড়ো হয়েছিলেন। দাপ্তরিক তথ্য-উপাত্ত, ভার্চুয়াল নানা খুঁটিনাটিসহ সার্বিক বিষয় খতিয়ে দেখা হচ্ছে। প্রয়োজনে সরেজমিনেও খতিয়ে দেখা হবে। আগামী ২৩ এপ্রিলের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার কথা থাকলেও সেটা প্রয়োজনে দুই-একদিন বেশি সময় লাগতে পারে। সার্বিক বিষয় তদন্ত করে আমি পুলিশ সদর দপ্তরে প্রতিবেদন জমা দেব। এরপর কর্তৃপক্ষ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন।’

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আনসারীর জানাজার সময় ও স্থান উল্লেখ করে ১৭ এপ্রিল রাত সাতটা ৪৭ মিনিটে ‘হাফিজ যুবায়ের আহম্মদ আনসারী’ নামের একটি ফেসবুক আইডি থেকে পোস্ট দেন তাঁর ছেলে। এই বিষয়টি তদন্ত কমিটিকে জানানো হয়েছে। পরিবারের দাবি, মারা যাওয়ার ঘণ্টা দুয়েক পরই পরিবারের সদস্যরা মৃতদেহ দাফন করতে সরাইলের বেড়তলায় রওনা হয়ে যান। লকডাউনের মধ্যে জনসমাগম যেন না হয়, সে জন্যই তাড়াতাড়ি করে তাঁরা শহর ছাড়েন। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি।

তদন্ত কমিটির সদস্য ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেন বলেন, রোববার সন্ধ্যা থেকেই তদন্ত কার্যক্রম শুরু হয়েছে। অনেকগুলো বিষয় নিয়ে তদন্ত চলছে।

১৭ এপ্রিল সন্ধ্যা পৌনে ছয়টায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের মারকাজপাড়ায় যোবায়ের আহমেদ আনসারী মারা যান। পরের দিন সকাল ১০টায় সরাইলের জামিয়া রাহমানিয়া বেড়তলা মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা যোবায়ের আহমেদ আনসারীর জানাজায় জনসমাগম হয়। ব্রাহ্মণবাড়িয়াসহ আশপাশের কয়েকটি জেলা থেকে লোকজন এসে জানাজায় অংশ নেন। করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে এত লোকের সমাগমে সমালোচনার ঝড় ওঠে। এ ঘটনায় পুলিশের তিন কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সংবাদটি পড়া হয়েছে 196 বার

যোগাযোগ

অফিসঃ-

উদ্যম-৬, লামাবাজার, সিলেট,

ফোনঃ 01727765557

voiceofsylhet19@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ

সম্পাদক মন্ডলি

ভয়েস অফ সিলেট ডটকম কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।