Voice of SYLHET | logo

১৪ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৭শে জানুয়ারি, ২০২২ ইং

আমাদের কাছে আসলে শাজাহান খানের সুর পাল্টে যায়: কাদের

প্রকাশিত : December 09, 2019, 20:20

আমাদের কাছে আসলে শাজাহান খানের সুর পাল্টে যায়: কাদের

সড়ক পরিবহন আইন বাস্তবায়নের পক্ষের লোকদের নিয়ে সাবেক মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ নেতা শাজাহান খানের ‘হুমকি’ প্রসঙ্গে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘এটা শাহাজান খানের নিজের ভাষা। কারণ, তিনি শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি, শ্রমিকদের খুশি রাখতে তিনি অনেক সময় অনেক কথাই বলেন, যা আমাদের সঙ্গে বলেন না। আমাদের কাছে এসে উনি অন্য সুরে কথা বলেন। আর সরকারকে বিপদে ফেলা কারও পক্ষে সম্ভব নয়। কারণ, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই সরকার পরিচালিত হচ্ছে।’

আজ সোমবার (৯ ডিসেম্বর) সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি এই কথা বলেন।

উল্লেখ্য, রবিবার (৮ ডিসেম্বর) নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে জেলা বাস মিনিবাস সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের এক অনুষ্ঠানে সাবেক নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান ‘নিরাপদ সড়ক চাই’ আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতা চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চনকে জ্ঞানপাপী বলে অভিহিত করেন। ইলিয়াস কাঞ্চনকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, ‘আপনি যে বিদেশিদের কাছ থেকে নিরাপদ সড়ক চাই এনজিওর নামে কোটি কোটি টাকা নিয়ে আসছেন, আপনি কয়টি প্রতিষ্ঠান করেছেন? কয়টি স্কুল করেছেন, কয়জন মানুষকে ট্রেনিং দিয়েছেন, আমি এ তথ্য বের করছি। ইলিয়াছ কাঞ্চন কোথা থেকে কত টাকা পান, কী উদ্দেশ্যে পান, সেখান থেকে কত টাকা নিজে নেন, পুত্রের নামে নেন, পুত্রবধূর নামে লাখ লাখ টাকা নেন, সেই হিসাব আমি জনসম্মুখে তুলে ধরবো।’

তিনি আরও বলেন, ‘বর্তমান আইনের পরিবর্তন প্রয়োজন রয়েছে, এটা চালকদের জন্য সহনীয় পর্যায়ের হতে হবে। একটি পক্ষ একতরফা চালকদের শাস্তির দাবি করে আসছে। কিন্তু অন্য যারা জড়িত, ওই বিভাগকে আড়াল করে চলেছে। সড়ক নিরাপদ করতে হলে প্রয়োজন সড়কের আধুনিকায়ন ও সংস্কার, প্রকৌশল ত্রুটিরোধ, পথচারী, যাত্রী পুলিশসহ সমন্বিত উদ্যোগ।’

সংবাদটি শেয়ার করুন

সংবাদটি পড়া হয়েছে 176 বার

যোগাযোগ

অফিসঃ-

উদ্যম-৬, লামাবাজার, সিলেট,

ফোনঃ 01727765557

voiceofsylhet19@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ

সম্পাদক মন্ডলি

ভয়েস অফ সিলেট ডটকম কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।